Header Ads

আজ বাংলা
ইংরেজি

তাফসিরে বাশারি ; সমালোচনার আগে আলোচনা প্রয়োজন

 




 

মুহাম্মদ বিন কাসিম যখন ভারতের সিন্ধু অভিযানে বের হন, তখন তার বয়স মাত্র ১৭ বছর। ১৭ বছরের যুবক কে সেনাপতি করে হাজ্জাজ ৬ হাজার অশ্বারোহী ও পদাতিক সৈন্য সহ সিন্ধু প্রদেশ প্রেরণ করেন।


আবু আব্দুল্লাহ মুহাম্মদ বাশার। বয়স পঁচিশ বছর। কোন এক মাহফিলে বক্তব্য দিতে গিয়ে অতি আবেগে বলেন,"পৃথিবীর সবথেকে বিখ্যাত তাফসির গ্রন্থ তিনি রচনা করবেন" (বিস্তারিত বলতে চাইনা)। 


এই বক্তব্যের ভিডিও মুহূর্তের মধ্যে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে যায়।

সমালোচনা,বিদ্রূপ, কুৎসা রটনা করা হচ্ছে তাকে নিয়ে।

যা অত্যন্ত খারাপ ও গর্হিত কাজ।


একজন দ্বীনি ভাই আবেগে একটা কথা বলতেই পারে। মানুষ নিজের সম্পর্কে একটু বেশি বলতে চায়।  সেও চেয়েছিলো হয়তো!  তাই বলে একজন ভাইকে নিয়ে ঠাট্টাতামাসা করা অনুচিত।

 

তাকে নিয়ে সমালোচনা করার আগে উচিৎ ছিলো,তাকে বুঝানো। 


প্রথমে বলেছিলাম মুহাম্মদ বিন কাসিমের গৌরবময় ইতিহাসের কথা।

মাত্র ১৭ বছর বয়সে সিন্ধু বিজয় করেছিলেন। আমরাতো তাদের অনুসারী।


 আল্লাহ যদি এই ভাইকে তাওফিক দান করেন, বিশ্ববিখ্যাত তাফসির রচনা করার। কেউ কি আটকাতে পারবেন?


নিশ্চয় আল্লাহ তায়ালা এই ক্ষমতার অধিকারী।

 

অতএব হে প্রিয় ভাই! কাউকে নিয়ে ঠাট্টাবিদ্রূপ করবেন না। ইহা অত্যন্ত খারাপ কাজ। নির্লজ্জ ও বেহায়াপনা কাজ।

কোন মন্তব্য নেই

Blogger দ্বারা পরিচালিত.