Header Ads

আজ বাংলা
ইংরেজি

রক্তদান-ফেসবুকে ফটো আপলোড -নেগেটিভ,পজেটিভ মন্তব্য!

হিফজুর রাহমান-

রক্তদানের পর আমাদের অনেক ভাইবোন ফেসবুকে ফটো আপলোড করি, এতে অনেকেই ভাবেন যে, রক্তদাতা হয়তো লোকদেখানোর জন্য রক্ত দিছেন!  এজন্য ফেসবুকে ফটো আপলোড দিছেন।


পাছে লোকে কিছু বলে, এরকম মন্তব্য এটি। এটা মন্তব্যকারীর ভুল ধারণা। 

আপনারা যদি লক্ষ্য করেন,আজ থেকে ১০/১৫ বছর আগে কেউ কাউকে রক্ত দিতোনা। ভাবতো, রক্ত দিলে রক্তদাতার ক্ষতি হবে। 


সে হিসেবে আপনারা যদি বর্তমান সময়ের দিকে লক্ষ্য করেন, দেখবেন অনেক সেচ্ছাসেবী রক্তদানে আগ্রহী।

গর্ব নয় উৎসাহের জন্য বলি, আমার এক ফ্রেন্ডের সাথে আমার প্রতিযোগিতার বিষয়'ই হচ্ছে, দুজনের মধ্যে কে আগে ৫০ বার রক্তদান করতে পারে, এটাই যাচাই করা।


আমি কেন রক্তদানে উদ্বুদ্ধ হলাম?  

আগে আমিও ভাবতাম, রক্ত দিলে আমার ক্ষতি হবে।  এমনিতেই শরীরের যে অবস্থা! হালকা বাতাশে, আমি আকাশে চলে যাবো!! এইসেই ভেবে, রক্ত দিতাম না।


 তারপর ফেসবুকে দেখলাম, অনেক ছেলেমেয়েরা রক্ত দিচ্ছে, তাদের মধ্যে অনেকেই আমার বয়সী। 

তখনই সাহস পেলাম রক্তদানে। এখন আলহামদুলিল্লাহ ৩ মাস  পরপর রক্ত দেওয়ার চেষ্টা করি।


যাইহোক! বলছি, যারা রক্ত দিয়ে এসে ফেসবুকে ফটো আপলোড করে, তাদেরকে নিয়ে বাজে মন্তব্য করবেন দূরের কথা! চিন্তাও করবেন না। 


রক্তদানের ফটো আপলোড দিলে, অন্যরাও রক্ত দিতে আগ্রহী হবে। আল্লাহ না করুন, আপনার বিপদের দিনে এই রক্তদাতারাই আপনার পাশে দাঁড়াবে। 

 

সুতরাং কখনো রক্তদাতাকে অবহেলা করবেন না।  রক্তদাতার সাথে সাক্ষাৎ হলে,তাকে উৎসাহ দেওয়ার চেষ্টা করবেন। তাদের কাজের প্রশংসা করবেন।


কোন মন্তব্য নেই

Blogger দ্বারা পরিচালিত.