Header Ads

আজ বাংলা
ইংরেজি

বিড়াল নিয়ে কিছু মজার তথ্য

 



  • -যারা বিড়াল ভয় পান তারা ailurophobia রোগে আক্রান্ত।


-৫০০০ হাজার বছর পূর্বে চীনা কৃষকরা প্রথম বুঝতে পারেন বিড়াল বাড়িতে পালন সম্ভব।


-মানুষের ফিংগারপ্রিন্টের মত প্রতিটি বিড়ালের নাকের প্যাটার্ন আলাদা।


-বৈজ্ঞানিক ভাবে বিচার করলে উসাইন বোল্টের চেয়েও একটি বিড়াল তিনগুন বেশি গতিতে দৌড়াতে পারে।


-পৃথিবীর সবচেয়ে ধনী বিড়াল ছিল "ব্ল্যাকি"। তার মালিক তার নামে ১৩ মিলিয়ন ডলারের সম্পদ লিখে গিয়েছিল।


-বিড়াল প্রায় ১০০ ধরনের আলাদা শব্দ করতে পারে, যেখানে কুকুর পারে ১০ ধরনের।

আরও মজার বিষয় হচ্ছে, বিড়াল শুধুমাত্র মানুষের সাথে যোগাযোগের জন্যই মিউ মিউ শব্দটি ব্যবহার করে।


-বিড়ালের মস্তিস্কের গতি এত বেশি যে ২০১৫ সালে একটি প্রতিযোগিতায় সুপার কম্পিউটারও পরাস্ত হয়েছিলো।


-অধিকাংশ মেয়ে বিড়াল ডানহাতি এবং ছেলে বিড়াল বামহাতি হয়ে থাকে।


-পৃথিবীর সবচেয়ে বেশি আয়ুস্কাল পেয়েছিল 'রুবল' নামের একটি বিড়াল, ৩১ বছর বেচেছিলো।


-অনেক উচু থেকে পড়ে গিয়েও বেচে ফিরেছে প্রায় ৯২ শতাংশ বিড়াল।


-মানুষের মত বিড়াল ঘুমিয়ে স্বপ্ন দেখে।


-একটি বিড়াল তার উচ্চতার প্রায় ৭ গুন লাফিয়ে উঠতে পারে।


-বিড়াল শুধু তার পায়ের পাতায় ঘামে।


-বিড়াল তার জীবনের ৩০ থেকে ৫০ ভাগ সময় ব্যয় করে নিজেকে পরিষ্কার করতে।


-বিড়াল গোয়েন্দাগিরি করতে ভালবাসে।


-বেশিরভাগ বিড়াল গান পছন্দ করে না।


-বিড়াল মিষ্টি স্বাদ পায় না।


-কিছু বিড়াল পানি খুবই পছন্দ করে, যেমন, টার্কিশ ভ্যান, বেঙ্গাল জাতের বিড়াল।


-এক জরিপে দেখা গেছে বিড়াল পালা হার্টের জন্য ভালো।


-বিড়াল আল্ট্রাসনিক শব্দ শুনতে পারে যা আমরা পারি না।


-একাধারে অনেকক্ষন তাকিয়ে থাকলে বিড়াল তা হুমকি হিসেবে মনে করে।


-বিড়াল দিনে ১৬ থেকে ১৮ ঘণ্টা ঘুমিয়ে কাটায়।

#সংগৃহীত 

কোন মন্তব্য নেই

Blogger দ্বারা পরিচালিত.