Header Ads

আজ বাংলা
ইংরেজি

তিন যুবকের নিরব প্রতিবাদ


                 
হিফজুর রাহমান:
প্রতিবাদের কোন ভাষা নেই। আপনি হয়তো অনেক প্রতিবাদ দেখেছেন। বিশালাকারের ব্যানার হাতে নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চাওয়াও দেখেছেন। গায়ে রঙ মেখে প্রতিবাদ করতেও দেখেছেন হয়তো। 
মৃত ব্যক্তির লাশ সামনে নিয়ে প্রতিবাদও দেখেছেন এটা অবিশ্বাস্য নয়।
তবে আজ যে সংবাদ আপনাদেরকে শুনাবো, তা হয়তো কখনো শুনেননি।

রাজনগর শহরের প্রাণকেন্দ্র, সোনালি ব্যাংকের সামনে রাস্তা ভেঙ্গেছে অনেকদিন হলো। সংস্কারের জন্য কেউ'ই উদ্যোগ নিচ্ছেন না। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে যুবকরা প্রতিবাদ করে যাচ্ছেন। তবুও প্রতিফল পাচ্ছেনা তারা।
আজ ২৬ জুন শুক্রবার অল্প বৃষ্টিতে রাস্তায় পানি জমে গেলে, তাতে বড়শি ফেলে প্রতিবাদ করেছেন তিন যুবক।
দুপুর ২.০০ টায় "Warner Alister (fuyad)" নামের এক ফেসবুক আইডি থেকে প্রতিবাদের ছবি দিয়ে পোস্ট করলে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়। পাঠকের বুঝার সুবিধার্থে, পরিমার্জন ব্যতীত ফেসবুক পোস্ট হুবহূ তুলে ধরা হলো।

" গতকাল রাতে খবর পেলাম সোনালী ব্যাংকের আশেপাশের বাসিন্দারা রাতে তেলাপিয়া মাছের ঘাই দেয়ার শব্দ শুনেছেন। তারপর কি আর অামাদের মত মৎস্যপ্রেমীদের ঘরে বসে থাকা যায়?
জুমআর নামাযের পর বিখ্যাত মৎস্য শিকারী ভাতিজা King Hamja ও ছোট ভাই Juwel Ahmed কে সাথে নিয়ে মৎস্য শিকারে নেমে পড়ি।
"মৎস্য মারিব খাইবো সুখে,
কি আনন্দ লাগছে বুকে"
শেষ-মেশ তেলাপিয়ার দেখা না পেলেও একটা পুটি মাছ ও একটা টেংরা মাছ শিকার করতে পেরেছি।"
-
সংবাদটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক থেকে নেওয়া -


কোন মন্তব্য নেই

Blogger দ্বারা পরিচালিত.